bdnewstime সঙ্গীত জগতে রয়েছে মাফিয়া, মুখ খুললেন মোনালি

সঙ্গীত জগতে রয়েছে মাফিয়া, মুখ খুললেন মোনালি

বিনোদন

সঙ্গীত জগতে রয়েছে মাফিয়া, মুখ খুললেন মোনালি

ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে মোনালি বলেন, আমি ওকে ধন্যবাদ জানাই কারণ উনি আমার সিনিয়র এবং বহুদিন ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে রয়েছেন। ইন্ডাস্ট্রির একজন বড় মিউজিশিয়ান সোনু নিগম। তিনি এসবের ঊর্ধ্বে। কিন্তু এটা ঠিক যে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে এই ধরনের বহু মাফিয়াগিরি হয়। অনেকেই তাদের টাকা পায় না। সেই জন্যই আমার মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির এই পরিবেশটা ভালো লাগে না। আমি আর চেষ্টাও করি না সিনেমায় গান গাওয়ার সুযোগ পাওয়ার। আমি এসব থেকে নিজেকে আলাদা করে নিয়েছি কারণ আমি আমার মানসিক শান্তি চাই।

মোনালির কথা অনুযায়ী, বলিউডে গুণী মিউজিশিয়ানদেরকে সুযোগ দেয়া হয় না। গায়িকা বলছেন, ওদের কিছু যায় আসে না। পিঁপড়ের মতন আপনাকে পিষে ফেলতে পারে। মাঝারি মানের শিল্পীদের এরা প্রচার করে। আমি খুব সহজভাবেই বলছি এবং জানি আমি কিছুই করতে পারবো না এদের বাঁচানোর জন্য।

সোনু সেই ভিডিওতে বলেছেন, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু হয়েছে। একজন অভিনেতার মৃত্যু হয়েছে। আগামীতে এই একই ঘটনা ঘটবে একজন গায়ক বা গীতিকার বা সঙ্গীত পরিচালকের সঙ্গে। কারণ সংগীত জগতে বড় বড় মাফিয়া বসে আছে দুর্ভাগ্যবশত।

তিনি আরো বলছেন সংগীত জগতে শুধুমাত্র দুজনের হাতে সমস্ত ক্ষমতা রয়েছে। তারা কোম্পানির মালিক। তারা চাইলে কাউকে দিয়ে গাওয়ান আবার কাউকে দিয়ে গাওয়ান না।

সোনুর অভিযোগ এদের জন্যই প্রচুর নতুন প্রতিভা সেভাবে সুযোগ পাচ্ছেন না বলিউডে কাজ। তিনি বলছেন, আমি সৌভাগ্যবান যে আমি অনেক ছোট বয়সে এই ইন্ডাস্ট্রিতে আসি। আমি বিষয়টা থেকে বেরিয়ে গেছি। গত ১৫ বছরে আমার আর গান গাওয়া সেরকম ইচ্ছে নেই। আমি নিজের মতো করে নিজের জগতে ভালো আছি। কিন্তু নতুন শিল্পী কম্পোজার এবং গীতিকারদের চোখে আমি সেই ফ্রাস্ট্রেশন দেখেছি। তারা কখনো কখনো হাউ হাউ করে কেঁদেছে।

সোনু নিগম বলছেন তাঁর সঙ্গেও সংগীত জগতে এমন ঘটনা ঘটেছে। তিনি একটি গান রেকর্ড করার পরেও দেখেছেন অন্য শিল্পীর কন্ঠে সেই গান মুক্তি পেয়েছে। তাই গায়ক এর কথায়, এটা যদি আপনারা আমার সঙ্গে করতে পারেন তাহলে আমি ভাবি নতুনদের সঙ্গে আপনারা কী ব্যবহারটাই না করছেন। আশা করছি আর কাউকে আত্মহত্যায় মারা যেতে হবে না।

Share Now

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *